মোঃ নাসির উদ্দিন,স্টাফ রিপোর্টারঃ-
১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর হানাদার বাহিনীর হাত থেকে মুক্ত হয়েছিল জামালপুর। এর আগে ০৯ ডিসেম্বর রাতভর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর প্রধান ক্যাম্প পিটিআই ঘাটির ওপর চতুমুখি গোলার আক্রমণ চালানো হয়।
সেই আক্রমণে ৪ শতাধিক পাকিস্তানি সেনা নিহত হয় এবং আহত হয় আরও শতাধিক।
১০ ডিসেম্বর ভোরে মৃত্যুঞ্জয়ী খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা জহুরুল হক মুন্সীর (বীর প্রতীক বার) নেতৃত্বে হাজারও মুক্তিযোদ্ধা ও স্বাধীনতাকামী মানুষের ‘জয় বাংলা’ স্লোগানে প্রকম্পিত হয় জামালপুর জেলা শহর।
আকাশে উড়ানো হয় স্বাধীন বাংলার পতাকা। জামালপুর মুক্ত করে মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনীর বীর বিক্রমে টাঙ্গাইল হয়ে ঢাকার অভিমুখে রওনা হন।
জামালপুরবাসী আজও ৯ ডিসেম্বরের রাতের যুদ্ধ ও ১০ ডিসেম্বরের জামালপুর শহরকে মুক্ত হওয়ার স্মৃতিকে হৃদয়ের মাঝে বহন করে আছেন।
দিবসটি স্মরনীয় করে রাখতে প্রতি বছরই জেলা প্রশাসন ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি পালন করা হয়।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ