শেখ মোঃ হুমায়ুন কবির, স্টাফ রিপোর্টার।

নারায়ণগঞ্জ জেলার, সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তা ওভার ব্রিজের নিচে চাঁদাবাজি সহ পৌরসভা ভট্টপুর, ষোলপাড়া এলাকায় জোরপূর্বক জমি দখল বানিজ্যে ব্যস্ত সময় পার করছে সন্ত্রাসী (ফাহাদ, সানাউল্লাহ বাহিনী), পৌরসভা ষোলপারায় একক আদিপত্য বিস্তার করে এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করে চলছে, দিনদিন বেড়েই চলছে ক্ষমতার অপব্যবহার।

এলাকার সাধারণ মানুষ কেউ কোন প্রতিবাদ করতে সাহস পান না, এক সাধারণ ভুক্তভোগি আক্তারুজ্জামান অভিযোগ করেন সানাউল্লাহ, মজিবুর, ফাহাদ ১০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে, বলা হয় তাদের টাকা না দিলে ক্রয়কৃত জমিতে প্রবেশ করতে দিবে না, এবং প্রাননাশের হুমকিও দিয়েছে বলে জানাযায়। চৌরাস্তায় পুরাতন নিরাময় নামের ডাঃ লোকমান সাহেবের বিল্ডিং রুম ভাড়ার কথা বলে বে-দখল করে রাখে প্রায় দুবছর যাবত, মোগরাপাড়া চৌরাস্তা ব্রিজের নিচে সাধারণ হকার ব্যবসায়ী সহ, চৌরাস্তা বড় মসজিদের পাশে মিষ্টির দোকান সহ বিভিন্ন কন্ফেকশনারী আইটেমের দোকানে জোরকরে ১০ হাজার টাকা চাঁদা আদায় করার অভিযোগ পাওয়া যায়, সানাউল্লাহ, মজিবুর রাতে ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপকর্ম করে বেড়ায়, আর সেই অপকর্মের সেল্টার দিয়ে থাকে শীর্ষ চাঁদাবাজ ফাহাদ, ফাহাদের বিরুদ্ধে থানায় ২০২১ সালে চাঁদাবাজির মামলা হয়, পরে এলাকার যুবলীগ নেতার সুপারিশে নিষ্পত্তি পান, ২০২২ সালে মেঘনার ঠিকাদার ব্যবসায়ির কাছে চাঁদা দাবি করে ফাহাদ, পরে থানায় মিথ্যা অভিযোগ করে ব্যবসায়ী সামসু সাহেবের কাছ ভয়ভীতি দেখিয়ে ১লক্ষ টাকা আদায় করে। ফাহাদের আপন বড় ভাইয়ের স্ত্রী ফাহাদের নামে ২০২২ ইং সালে থানায় অভিযোগ সহ কোর্টে মামালা করে। ২০২৩ সালে মার্চ মাসে এক সাংবাদিক, মাজেদ ভুইয়াকে প্রাননাসের হুমকির অভিযোগে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের পাওয়া যায়, এভাবে প্রতি বছর ১ ডজন অভিযোগ পাওয়া যাবে নিকটস্থ থানায় রেজিস্ট্রার খাতায় তল্লাশি দিলে, মেঘনার নাজমুল নামের এক ভুক্তভোগী ১৯ জুন থানায় অভিযোগ করে।

জানা যায় নারী সাংবাদিক জান্নাত জাহার সাইবার ট্রাইবুনালে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে, সানাউল্লাহ মজিবুর বীগত বছরে বিভিন্ন মামলায় জেল হাজতও খাটে। সোনারগাঁও বাসি এই সানাউল্লাহ ফাহাদ বাহিনীর কাছ থেকে মুক্তির প্রতিকার চেয়ে সাংবাদিকদের কাছে বক্তব্য তুলে ধরেন।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ