রবিবার, ৭ আগস্ট,২০২২

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

সাভারে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজের প্রায় ১৪ ঘণ্টা পর হৃদয় মাহমুদ (২৫) নামে এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। এ ঘটনায় আরও দুই শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে সাভার সুপার ক্লিনিকে ভর্তি রয়েছেন।

রোববার (৭ আগস্ট) সকাল ১১টার দিকে সাভারের জাহাঙ্গীরনগর সোসাইটির খাল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে গতকাল রাত ৯টার দিকে ৭ বন্ধু মিলে ওই খালে নৌকায় ঘুরতে যান তারা। এ সময় নৌকাটি ডুবে যায়।

মৃত হৃদয় মাহমুদ সরকারি সাভার কলেজের স্নাতকের চূড়ান্ত বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। তিনি ছায়া বিথি এলাকার আলমাস আলীর ছেলে। আলমাস আলী সাভার সিটি সেন্টারের নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে চাকরি করেন। অসুস্থ অপর দুইজন হলেন নাইম (২৪) ও শামীম (২৬)। তাদের বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

স্থানীরা জানান, গতকাল রাত ৯টার দিকে হৃদয়, শামীম ও নাইমসহ ৭ বন্ধু জাহাঙ্গীর নগর সোসাইটির বিলে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যান। এ সময় তাদের নৌকাটি ডুবে যায়। পরে একে অপরের সহায়তায় সবাই তীরে উঠতে পারলেও হৃদয় নিখোঁজ হন। উদ্ধার হওয়া ৬ জনের মধ্যে দুইজন গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

রাতে নিখোঁজ হৃদয়কে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও সন্ধান মেলেনি। পরে সকাল ১১টার দিকে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের লিডার আবু বকর সিদ্দিক বলেন, রাত বেশি হওয়ায় আমরা উদ্ধার কাজ করতে পারিনি। পরে সকালে আমরা উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে নিখোঁজ হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করতে সক্ষম হই।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন বলেন, নিহতের পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ