মাদারীপুরের রাজৈরে রেষ্টুরেন্টের আড়ালে কিশোর-কিশোরীদের অনৈতিক কাজে সুযোগ দেওয়া এবং লাইসেন্স না থাকায় ভুতের আড্ডা ও রয়েল রেষ্টুরেন্টের মালিকদের ১৫ হাজার করে মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় ২ জোড়া কপোত-কপোতীকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়। বুধবার বিকালে উপজেলার টেকেরহাট বন্দরের পাঁচতলার মোড়ের পাশে এ অভিযান পরিচালিত হয়।
ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা যায়, উপজেলার টেকেরহাট বন্দরে ভুতের আড্ডা ও রয়েলসহ কয়েকটি রেষ্টুরেন্টে ছোট ছোট খুপড়ি ঘর বানিয়ে কিশোর-কিশোরীদের অনৈতিক কাজে সুযোগ সৃষ্টি এবং বেপরোয়া কিশোর গ্যাংয়ের কর্মকান্ড চলছে সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অন্যরা পালিয়ে গেলেও ২ জোড়া কপোত-কপোতীকে আটক করা হয়। এসব কাজে সহযোগিতা করায় এবং লাইসেন্স না থাকায় ভুতের আড্ডা রেষ্টুরেন্টের মালিক এজাজ হোসেন এবং রয়েল রেষ্টরেন্টের মালিক সাজিদ হোসেনকে ১৫ হাজার করে মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আনিসুজ্জামান জানান, রেষ্টুরেন্ট দুটির লাইসেন্স নাই, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ এবং অনৈতিক কাজের সুযোগ দিয়ে খাদ্য পন্যের দাম বেশি নেওয়ায় তাদের প্রত্যেককে ১৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও ২ টি জুটিকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে অবিভাবকের জিম্মায় দেওয়া হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ