সুমন,মোংলা(বাগেরহাট)সংবাদদাতা:
আসন্ন উপজেলা পরিষদ ভোটকে কেন্দ্র করে সারাদেশেই বইছে নির্বাচনী হাওয়া। চায়ের দোকানে আড্ডা কিংবা নানা সামাজিক মাধ্যম থেকে শুরু করে ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানেও উপস্থিত হয়ে সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোটারদের আভাস দিচ্ছেন ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হওয়ার। আর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে থেকে এলাকায় দোয়া চেয়ে পোস্টার লাগিয়ে প্রার্থিতা জানান দেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। সেই সঙ্গে এলাকায় লোকজনের সঙ্গে কুশল বিনিময়ও করেছেন তারা।
মোংলা উপজেলাতেও এখন অলিতে-গলিতে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। সেইসঙ্গে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রচারও শুরু করে দিয়েছে। এদিকে মোংলা উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে এবার ৩ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিবেন বলে আভাস পাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে প্রার্থীরাও তাদের প্রতিদ্বন্ধী হওয়ার আকাঙ্ক্ষা কথা জানিয়েছেন; চালাচ্ছেন প্রচারও।
যে চারজন প্রার্থী মোংলা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংশ নিবেন বলে নিশ্চিত করেছেন; তারা হলেন মোংলা উপজেলা পরিষদের বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও মোংলা পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান মিসেস কামরুন নাহার হাই, সরকারি টি.এ ফারুক স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা তালুকদার আখতার ফারুক (টি.এ ফারুক) এর সহধর্মিণী ও মহিলা আ’লীগ নেত্রী সরবরিয়া খানম দরিয়া এবং বাংলাদেশ নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি ও বাংলাদেশ নারী উন্নয়ন সংস্থা’র সভাপতি ও বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ (মহিলা শাখা)’র সাংগঠনিক সম্পাদক সুমা মন্ডল (ছায়া)।
নির্বাচনে অংশগ্রহনের বিষয়ে জানতে চাইলে সম্ভাব্য মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মিসেস কামরুন নাহার হাই বলেন, আমি তিনবার উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান। বর্তমানেও দায়িত্বরত আছি। এসময় আমি জনগণের সুখ-দুঃখে তাদের পাশে ছিলাম এবং এখনো আছি। বিগত পাঁচ বছর সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে চলার চেষ্টা করেছি। আরেকবার সুযোগ পেলে জনগণের পাশে থাকতে চাই। আগামীতেও তাদের পাশে থেকে জনসেবা করতে আমি উপজেলাবাসীর দোয়া চাই।
আরেক সম্ভাব্য মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সরবরিয়া খানম দরিয়া বলেন, আমি আওয়ামীলীগ রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। সব সময় মাঠে ছিলাম।এছাড়া আমি বিভিন্ন সময় এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে ছিলাম। ভবিষ্যতে ও তাঁদের পাশে থাকবো। আমি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংশ নিব, তাই সকলের দোয়া ও ভালোবাসা চাই।
সুমা মন্ডল (ছায়া) বলেন, আমি নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিজয়ী হয়ে মোংলার মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি এলাকায় শিক্ষার প্রসারে, সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চাই। বিশেষ করে পিছিয়ে পড়া নারীদের পাশে থেকে তাঁদের জন্য ভালো কিছু করতে চাই। এজন্য আমি সকলের দোয়া ও ভালোবাসা কামনা করি।
মোংলা উপজেলার ভোটাররা বলছেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংশ নেওয়া সম্ভাব্য ৩ জন প্রার্থীর এলাকায় জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে যিনি মোংলাবাসীর উন্নয়নে কাজ করবে, ভূমিকা রাখবে সেইরকম যোগ্য প্রার্থী বিবেচনা করে তারা ভোট দেবেন।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ