মাদারীপুর জেলা প্রধান

মাদারীপুর সদর উপজেলার কালিকাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নেশাদ্রব্য খাইয়ে অচেতন করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সোমবার রাত ১১টায় মাদারীপুর সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগীর পরিবার। অভিযুক্ত সজীব সরদার (২২) সদর উপজেলার স্বনির্ভর ছিলারচর গ্রামের আশরাফ সরদারের ছেলে।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ জানায়, কালিকাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষা খাতা দেখানোর জন্য রোববার দুপুরে বিদ্যালয়ে আসেন ঐ শিক্ষার্থী। এ সময় প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে সদর উপজেলার স্বনির্ভর ছিলারচর গ্রামের আশরাফ সরদারের ছেলে সজীব সরদার কৌশলে ঐ শিক্ষার্থীকে শহরের নিয়ে আসে। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শহরের পুরান বাজার এলাকায় একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়। বিকেলে খাবারের সাথে চেতনানাশক খাইয়ে অচেতন করে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ নির্যাতিতার। এতে শিক্ষার্থীর প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে মেয়েটি। অবস্থা গুরুতর দেখে এক পর্যায়ে রাত ৯টার দিকে শিক্ষার্থীকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে সজীব। মেয়েটির অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে হাসপাতাল থেকে সটকে পরে অভিযুক্ত। এই ঘটনার বিচার দাবী করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রিয়াদ মাহমুদ বলেন, শিক্ষার্থীর ধর্ষণের আলামত সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। তার ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেলে চিকিৎসা চলছে।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, আমরা ঘটনাটি শুনে হাসপাতালে পুলিশ পাঠিয়েছি। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর পরিবারকে সব ধরনের আইনী সহায়তা দেয়া হবে। এবং আইনের আওতায় আনা হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ