ক্রাইম রিপোর্টার মোঃজুয়েল খান বাগেরহাট জেলা।
ভুক্তভোগী নাজিরা সুলতানা পিতা, মৃত আলহাজ্ব হাতেম আলী শেখ, মাতা, হাজেরা বেগম। সাং সায়ড়া, উপজেলা বাগেরহাট, জেলা বাগেরহাট সদর। নিজ ক্রোয়কৃত সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত নাজিরা বেগম বলেন সমস্ত কাগজপত্র আমার পক্ষে থাকলেও। ইব্রাহিম শেখ জাল কাগজপতির মাধ্যমে এলাকার মেম্বারের সহযোগিতায় জোরপূর্বক ভাবে দখল কোরিয়া পাকা বাড়ি নির্মাণ করিয়াছেন। ইব্রাহিম শেখ, পিতা মৃত আমির আলী শেখ, মাতা রহিমা বেগম ।
,সাং সায়েড়া উপজেলা বাগেরহাট, জেলা বাগেরহাট সদর। এই ভূমিদস্যু ইব্রাহিম শেখ, ও জাহাঙ্গীর শেখের বিরুদ্ধে, বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ দেওয়ার পরেও নাজিরার সম্পত্তি নাজিরা বুঝিয়া পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে, অবশেষে গণমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থা বাগেরহাট জেলায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন, নাজিরা সুলতানার অভিযোগের উপরে ভিত্তি করে, বাগেরহাট জেলার সভাপতি সনজিৎ পাত্র এবং সাধারণ সম্পাদক শিমুল চন্দ্র রায় বলেন, আমরাও সংস্থার মাধ্যমে কয়েকবার সালিশি করলেও, এলাকার মেম্বার সহ ইব্রাহিম শেখ জাহাঙ্গীর শেখ সালিশি কার্যক্রম মানলেও পরবর্তীতে সু কৌশলে, খুব দ্রুত। নাজিরা সুলতানার জায়গার উপরেই একটি অর্ধ পাকা ঘর রাতারাতি তৈরি করে ফেলেন, এ ব্যাপারে গণমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থা বাগেরহাট জেলার নেতৃবৃন্দ বাধা দিলে তাদেরকে, এলাকার মেম্বারসহ কিছু গণ্যমান্য ব্যক্তি বলেন যে যদি নাজিরা সুলতানা জায়গা বুঝিয়া পায় তাহলে আমরা নাজিরার জায়গাকে খালি করে দিয়ে চলে যাব, এ ব্যাপারে এলাকার লোকজন সহ মেম্বারকে জিজ্ঞাসাবাদ করিলে মেম্বার পুরো ঘটনাকে অস্বীকার করে যান।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ