এম,ডি রেজওয়ান আলী, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:- দিনাজপুর বিরামপুর খানকা শরীফের মাহফিল থেকে সাথীদের নিয়ে যাওয়ার সময় দ্রুতযান এক্সপ্রেস চলন্তট্রেনে ওঠার সময় নিহত হন। আজ শনিবার (৯ মার্চ) দিনাজপুর বিরামপুর খানকা শরীফের ওয়াজ মাহফিল শেষ করে আজ সকালে ঢাকার উদ্দেশ্যে ট্রেনে যাওয়ার সময় ট্রেনে উঠতে গিয়ে নয়ন নামের এক যাত্রী দুর্ঘটনা স্বীকার হন নয়ন (৪০) নামের ব্যক্তি। উক্ত ঘটনা সরজমিনে আরও জানা যায়,বিরামপুর উপজেলার পুরাতন বাজার বড় মসজিদ সংলগ্ন কাপড় ব্যবসায়ি মোঃ হাসানের ছেলে নয়ন মিয়া (৪০) খানকা শরীফের ওয়াজ মাহফিলে সাথীদের ঢাকা থেকে নিয়ে আসেন। ওয়াজ শেষ করে পিতা হাসানের উপস্থিতিতে সাথীদের ট্রেন যোগে ঢাকায় যাওয়ার চলন্ত ট্রেনে ওঠার সময় এই দুর্ঘটনার স্বীকার হন। এমন অবস্থায় বিরামপুর রেলস্টেশন মাস্টার তাৎক্ষণিকভাবে বিরামপুর ফায়ার সার্ভিস টিমকে জানালে তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। উক্ত টিম গুরুতর জখম অবস্থায় নয়ন কে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক দেখে মারা গেছে বলে জানান। ঢাকার উদ্দেশ্যে যাওয়ার ট্রেনটি দ্রুতযান এক্সপ্রেস বিরামপুর রেলস্টেশনে আজ সকাল ১১টা ২২ মিনিট সময় থেমে যায়। উক্ত মাহফিলের যাত্রি গনের সুবিধার্থে দ্রুতযান ট্রেনটি দাঁড়ানোর সময় ৩ মিনিট থাকলেও একটানা ৭-৮ মিনিট সময় ধরে অবস্থান করছিল। এরপরেও উক্ত নিহত যাত্রী ট্রেনে উঠার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান বিরামপুর রেলস্টেশন মাস্টার।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ