এম,ডি রেজওয়ান আলী বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি-দিনাজপুর বিরামপুরে সমাজসেবা মূলককাজে একাধিক পুরস্কার প্রাপ্ত দিওড় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আঃ মালেক মন্ডল। এবিষয়ে জানা যায়,দিনাজপুর বিরামপুর উপজেলাধীন ৪নং দিওড় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আঃমালেক মন্ডল প্রকৃত একজন কর্মী ও ক্রীড়াবান্ধব জনপ্রিয় চেয়ারম্যান হিসাবে সকলের কাছে সুপরিচিত হয়ে উঠেছেন। আব্দুল মালেক মন্ডল উল্লেখযোগ্য মানবিক কার্জক্রম করেছেন নিজ অর্থায়নে। তিনি নিজেকে দিওড় ইউনিয়নের সমাজ সেবায় নিবেদিত একটি প্রাণ। তিনি ২০১৭ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত, বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাস্থ বেশ কিছু সুনামধন্য আলোচিত জনকল্যাণকামী ও মানবিক সংস্থা গুলো থেকে বারংবার প্রতি বছরের ন্যায় সমাজ সেবায় পুরস্কার প্রাপ্ত হয়েছেন। সমাজ সেবক আঃ মালেক মন্ডল,ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সতন্ত্র (চেয়ারম্যান) প্রার্থী হিসেবেও বিপুল ভোটে ৪নং দিওড় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হন। তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে পূর্বের ন্যায় সকল মানবিক কর্মকান্ড অব্যাহত ও চলোমান রেখেছেন।
উল্লেখ্য তিনি গত ২৫ মে বাংলাদেশ বিপ্লবী জনতা স্টার এ্যাওয়ার্ড ২০২৩ ইং এর মানবসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশ বিপ্লবী জনতা ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কচি-কাচার মেলা সেগুনবাগিচা ঢাকা কতৃক ক্রেস্ট এবং সম্মাননা স্মারক পেয়ে থাকেন চেয়ারম্যান আঃ মালেক মন্ডল। এমন উদ্বোগীমনা মানবিক সহযোগী বিনোদন প্রিয় মানুষের অভাবে হারিয়ে যাচ্ছিলো প্রায় দিওড় ইউনিয়নের গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা ধুলা ও অবহেলীত মানুষের জীবন মান উন্নয়ন। হঠাৎ এই সাহসী সৈনিক ও উত্তর জনপদের জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব,মানবতার ফেরিওয়ালা,আশ্রয় হীনদের আশ্রয়স্থল হিসাবে পরিচিত হয়েছেন। জাতীয় সংসদ সদস্য (এমপি)মোঃশিবলী সাদিক স্নেহের প্রিয় মুখ সমাজসেবক মোঃ আঃমালেক মন্ডল। তিনি ৪নং দিওড় ইউনিয়নে আগন্তুক আগমনে সেই সব খেলা-ধুলা অবহেলিত জনগোষ্ঠীর উন্নয়ন পূর্রায় ফিরে এসেছে। তথসঙ্গে তরুণ যুবকদের খেলা-ধুলার প্রতি মনোনিবেশ দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে,এবং চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়া অবদি মাত্র দেড় বছরের মধ্যে ব্যাপক ভাবে অনুভূতির বৃদ্ধি হয়েছে। দিওড় ইউনিয়নের গ্রামীণ কাচা রাস্তা সিসি করণ,ড্রেন,ক্যালভাট বয়স্কভাতা মাতৃকালীন ভাতা টিসিবি রেসন কার্ড ৩০ কেজি চালের কার্ড ১৫ টাকা কেজি চালের কার্ড বিধবা ভাতা প্রতিবনদী ভাতা বিনামূল্যে পাওয়ায় সর্বস্তরের মানুষের জীবন মানের উন্নয়ন হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন স্হানীয় সাধারণ জনসাধারন। এবিষয়ে স্হানীয় জনসাধারণ এমন মানবিক চেয়ারম্যান বার বার দরকার,তবেই হবে উন্নয়ন।।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ