বরিশালে এনজিওর নামে প্রায় দূই কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ইউপি নারী সদস্য

মোঃ সোলায়মান হাওলাদার
বরিশাল বিভাগীয় প্রতিনিধিঃ

উন্নয়ন বহুমুখী সমবায় সমিতি ও রিদু এনজিওর নামে প্রায় দুই কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা নারী ইউপি সদস্য ও তার স্বামী। ঘটনাটি বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার ৩নং দাঁড়িয়াল ইউনিয়নে।

একাধিক ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, দাঁড়িয়াল ইউনিয়নের ১,২,৩ সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রাবেয়া বসরি লিপি ও তার স্বামী লিটন খান সমিতির নামে দুই কোটি টাকা নিয়ে গাঁ ঢাকা দিয়েছেন। এ ঘটনায় নি:স্ব হয়েছেন বহু পরিবার।
ইউনিয়নের দাঁড়িয়াল গ্রামের মোসলেম আলি খানের ছেলে লিটন খান ও তার স্ত্রী নারী ইউপি সদস্য রাবেয়া বসরি লিপি। গ্রামের মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকাপয়সা হাতিয়ে লাপাত্তা হয়েছেন।
ভুক্তভোগী লাল হাওলাদার বলেন, আমার গ্রামের নারী ইউপি সদস্য রাবেয়া বসরি লিপি উন্নয়ন বহুমুখী সমবায় সমিতি ও রিদু নামের দুটি এনজিওতে কাজ করেন। আমিসহ ছয়জনের প্রায় একত্রিশ লাখ টাকা তার মাধ্যমে জমা ছিলো। গত কয়েকদিন যাবত সে ও তার স্বামীর খোঁজখবর পাওয়া যাচ্ছেনা মোবাইল ও বন্ধ।
তিনি আরো বলেন, রিদু এনজিওর নামে ৪শ লোকের কাছ থেকেও বিপুল পরিমান টাকা নিয়েছেন । এছাড়াও টিউবওয়েল দেয়ার কথা বলে টাকা নিয়েছেন কয়েকটি পরিবারের। সবমিলিয়ে প্রায় দুই কোটি টাকা নিয়ে তারা লাপাত্তা হয়েছেন।
উন্নয়ন সমবায় সমিতির সভাপতি মো: শহিদুল বলেন, রাবেয়া বসরি লিপি আগে আমাদের সমিতির সদস্য ছিলেন তবে দীর্ঘদিন হয় তাকে বাদ দেয়া হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ