বিশেষ প্রতিনিধি

আসন্ন বেনাপোল পৌর নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ড ভবেরবেড় এর ব্রিজ প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ মুসলিম উদ্দিন পাপ্পু কর্তৃক প্রতিদন্দী প্রার্থী ডালিম প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের মারপিটের অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন অপর প্রার্থী এনামুল হক জুয়েল। শুক্রবার (৭ জুলাই) সকাল ১১.৩০ মিনিটে ভবেরবেড় গ্রামস্থ ডালিম প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে ডালিম প্রতিকের কর্মী-সমর্থকসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলো। সংবাদ সম্মেলনে ৬নং ওয়ার্ডের ডালিম প্রতীকের প্রার্থী এনামুল হক জুয়েল জানান,বৃহষ্পতিবার (৬ জুলাই) বিকাল ৫টার দিকে তার কর্মী-সমর্থকরা নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসাবে ভবেরবেড় গ্রামের কলু পাড়ায় সাধারন ভোটারদের মাঝে লিফলেট বিতরন করছিলো। এসময় ব্রিজ প্রতিকের কর্মী মন্ডলের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একটি দল আমার সমর্থকদের এলাকায় নির্বাচনী প্রচার কাজ চালানো যাবেনা বলে হুমকী দেই। আমার সমর্থকরা প্রতিবাদ করলে ব্রিজ প্রতীকের প্রার্থী মুসলিমের নেতৃত্বে ২০/২৫জনের সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীদল আকস্মিক চড়াও হয়ে মারপিট শুরু করে। ব্রিজ প্রতীকের প্রার্থী নিজেই মেহেদী হাসান বাবু (২৯)নামের আমার সমর্থককে পিটিয়ে রক্তাত্ব জখম করেন। মাহাবুর,শাকীলসহ আমার আরো ৫/৬জন কর্মীকে তারা মারধর শেষে আটকিয়ে রাখেন। খবর পেয়ে আমি পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করলে তাদের উপস্থিতিতে গ্রামবাসীরা আমার কর্মীসমর্থকদের উদ্ধারসহ চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতেই আমি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। প্রার্থী কর্তৃক প্রকাশ্য অপর প্রতিদন্দী প্রার্থীর সমর্থকদের শারিরিক নির্যানতকরে ও নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দিয়ে দন্ডনীয় অপরাধসহ নির্বাচন আচরনবিধি লংঘন করেছেন। তাই আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট কার্যকারী ব্যবস্থাগ্রহনের জোরালো দাবী জানাচ্ছি। সাথে সাথে ব্রিজ প্রতীকের প্রার্থী কর্তৃক সুষ্ঠ নির্বাচনী পরিবেশ বিনষ্ঠ করতে আমার কর্মী-সমর্থকের উপর হামলা,ভয়-ভিতী প্রদর্শন, মিথ্যা অপপ্রচারসহ নানামূখী ষঢ়যন্ত্রের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। অভিযোগ বিষয়ে ব্রিজ প্রতীকের প্রার্থী মুসলিম উদ্দিন পাপ্পু সাংবাদিকদের জানান,তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ বানোয়াট ভিত্তিহীন।প্রকৃত ঘটনা তিনিও পাল্টা সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সকলকে জানাবেন। বেনাপোল পোর্টথানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূইয়া ডালিম প্রতীকের প্রার্থী এনামুল হক জুয়েল কর্তৃক থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,অভিযোগ বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখেছে। ভোটের পরিবেশ সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ন করতে বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশ কঠোর ভূমিকা নেবে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ