উজ্জ্বল কুমার সরকারঃ
নওগাঁয় হত্যা মামলায় নিরঞ্জন উড়াও নামেরি এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
বুধবার (২৭ মার্চ) দুপুরে নওগাঁ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবু শামীম আজাদ এ রায় দেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০২২ সালের ১ আগস্ট মাসের নওগাঁর পোরশা উপজেলার বরবারিয়া গ্রামের রামেশ্বর চন্দ্র (৫৫) নিজের জমিতে আইল কাটার কাজ করছিলেন। এসময় প্রতিবেশি নিরঞ্জন উড়াও লাঠি দিয়ে তাকে আঘাত করেন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় রামেশ্বর চন্দ্রকে প্রথমে পোরশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়।
সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই দিনই তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৩ আগস্ট রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রামেশ্বর চন্দ্র মারা যান।এ ঘটনায় ওই দিন রাজশাহীর রাজপাড়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়। এই ঘটনায় তদন্ত শেষে নিরঞ্জন উড়াওয়ের বিরুদ্ধে ২০২৩ সালের ১৬ মে দণ্ডবিধি-১৮৬০ এর ৩০২/২০২ ধারায় অভিযোগ গঠন করে আদালতে জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযোগপত্রে উল্লেখিত ১৩ জন সাক্ষীর মধ্যে ১২ জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। উভয়পক্ষের শুনানি নিয়ে নওগাঁর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবু শামীম আজাদ আসামি নিরঞ্জন উড়াওকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। এছাড়া তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তাকে আরও ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন সরকারি কৌসুলি (পিপি) আব্দুল খালেক। আসামির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এস এম সারোয়ার হোসেন।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ