উজ্জ্বল কুমার সরকারঃ
নওগাঁর রাণীনগরে গত এক বছরে বিভিন্ন এলাকা থেকে ৬টি ট্রাক্টর চুরির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে একটি মাত্র ট্রাক্টর উদ্ধার হলেও এখন পর্যন্ত আরো ৫টি ট্রাক্টর উদ্ধার কিম্বা কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এরই মধ্যে মঙ্গলবার রাতে ফের আরো একটি ট্রাক্টর চুরির ঘটনা ঘটেছে। মালিকরা বলছেন, চুরির পর থানায় অভিযোগ করে, সিসিটিভি ফুটেজ সরবরাহ করলেও এখনো কাউকে সনাক্ত কিম্বা চুরির ট্রাক্টর উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। ফলে চুরি আতংকে রয়েছেন তারা।উপজেলার আবাদপুকুর বাজার কুতকুতিতলা এলাকার বাসিন্দা ট্রাক্টর মালিক ওয়াজকুরুনি জানান, প্রতি দিনের ন্যায় চালকরা সন্ধ্যায় এসে ট্রাক্টর রেখে চলে যায়। বাসার পাশেই এক সাথে তিনটি ট্রাক্টর ছিল। এর মধ্য থেকে মঙ্গলবার দিনগত রাতে একটি ট্রাক্টর চুরি হয়ে গেছে। এর আগে গত ৩০আগষ্ট উপজেলার মালশন গ্রামে শ্বশুরের দাফন-কাফনে অংশগ্রহণকারীদের খাবারের জন্য রান্না করতে কিছু খড়ি ট্রাক্টরে নিয়ে যান। এরপর দুপুরে জানাজা চলাকালে কে বা কাহারা ট্রাক্টর চুরি করে নিয়ে যায়। এর বেশ কিছু দিন আগে আরও একটি ট্রাক্টরসহ মোট তিনটি ট্রাক্টর চুরির ঘটনা ঘটেছে। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এক এক করে তিনটি ট্রাক্টর চুরির ঘটনা ঘটলো। এসব চুরির ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও এখন পর্যন্ত ট্রাক্টর উদ্ধার কিম্বা চুরির সাথে জড়িত কাউকে সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। উপজেলার চকমনু গ্রামের উজ্জল হোসেন বলেন, উপজেলার বেলঘড়িয়া গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মানের কাজ চলছে। সেখান থেকে গত মঙ্গলবার রাতে প্রায় আড়াই লাখ টাকা মূল্যের আমার খোয়া ভাঙ্গা মেশিন চুরি হয়ে গেছে। এঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।উপজেলার কালীগ্রাম ইউনিয়নের ছতরবাড়িয়া গ্রামের আলাউদ্দীন বলেন, গত জুলাই মাসে তার খলিয়ান থেকে রাতে ট্রাক্টর চুরি হয়ে গেছে। এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগসহ একটি সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে থানাপুলিশকে দিলেও এখন পর্যন্ত ট্রাক্টর উদ্ধার বা জড়ির কাউকে সনাক্ত করতে পারেনি। ফলে হতাশা গ্রস্থ হয়ে পরেছেন তিনি। এছাড়া একই গ্রামের মানিক নামে একজনের ট্রাক্টর আবাদপুকুর বাজার থেকে চুরির ঘটনা ঘটেছে। তবে গত এপ্রিল মাসে উপজেলার খট্রেশ্বর গ্রামের আশিকুল টিকাদারের একটি ট্রাক্টর সদরের শাহী পেট্রোল পাম্প থেকে চুরি হয়ে যায়। ওই ঘটনায় থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুইজনকে গ্রেপ্তারসহ চুরি যাওয়া ট্রাক্টর উদ্ধার করেছেন। এদিকে এলাকাবাসী জানান, শুধু ট্রাক্টর নয়, এই উপজেলা থেকে অনেক মোটরসাইকেল, ব্যাটারী চালিত অটো চার্জার, টমটমগাড়ী চুরির ঘটনা ঘটছে। কিন্তু এসব চুরির সাথে জড়িত কাউকে সনাক্ত করে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ফলে দিন দিন চুরির ঘটনা ঘটেই চলেছে। উপজেলার দামুয়া গ্রামের আব্দুল লতিফ বলেন, গত ২০২২সালে ২০ ডিসেম্বর গ্রামে একটি জানানা চলাকালে তার নিজের একটি মোটরসাইকেলসহ দুটি মোটরসাইকেল এক সাথে চুরি হয়ে যায়।এঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন কিন্তু কোন ফল মেলেনি। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত এক বছরের মধ্যে সিলমাদার গ্রামে জানাজা চলাকালে একটি, কালীগ্রাম বড়িয়াপাড়া গ্রামে জানাজা চলাকালে একটি, গুয়াতা পৌষ সংক্রান্ত মেলা থেকে একটি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া বিভিন্ন হাটে বাজারে এবং মসজিদে নামাজ চলাকালেও মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটছে। রাণীনগর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এসএম সাইফুল ইসলাম বলেন, গত ১০ জুলাই প্রেসক্লাবের নিচতলার গেট থেকে একটি ১৫০ সিসি পালসার মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় মোটরসাইকেল চুরির একটি সিসিটিভি ফুটেজসহ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত চোর সনাক্ত কিম্বা মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। কিছু দিন আগে থানায় যোগদান করেছি জানিয়ে রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়েদ বলেন, অনেক সময় মালিকের কর্মচারী বা ছেলেরাই গাড়ী অন্যত্র সরিয়ে রেখে চুরি হয়েছে বলে প্রচার করে। এক্ষেত্রে আপনি যাচাই বাছাই করে নিউজ করেন, আমরাও চুরির ঘটনা যাচাই বাছাই করে দেখছি বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ