উজ্জ্বল কুমার সরকার, নওগাঁঃ
নওগাঁর সাপাহারে বাখরপুর মহিষডাঙ্গা গ্রামে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লেগে এক দরিদ্র পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে ভূষ্মিভূত হয়ে গেছে। গত ২১মার্চ দিবাগত রাত্রি অনুমান সাড়ে ১০টার দিকে ঘরের মধ্য থেকে শর্টসার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ সাপাহার উপজেলা প্রকৌশল অফিসের আর এম পি প্রজেক্ট এর অফিস পিয়ন জাকিয়া সুলতানা জানান, ঘরের মধ্যে শুয়ে থাকা অবস্থায় তিনি ঘরের বিদ্যূতের প্রত্যেকটি তারে আগুন জ্বলতে দেখে চিৎকার করতে থাকে এবং মূহূর্তে আগুনের লেলিহান শিখা সমস্ত ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। এসময় তার এক মেয়ে ঘর থেকে বেরুতে না পেরে ঘরের মধ্যে আটকা পড়ে। পরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মেয়েটির বাবা বেলাল হোসেন জ্বলন্ত আগুনের মধ্যে প্রবেশ করে মেয়েকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে এসময় বাবা ও মেয়ের পায়ে আগুনের ঝলাসানী লেগে দু’জনের পা ঝলশে যায়। পরে তাদেরকে সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নিয়ে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাতেই সংবাদ পেয়ে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পলাশ দেব নাথ স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট দ্রুত ঘটনা স্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন তবে ততক্ষনে দরিদ্র পরিবারের সর্বস্ব আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুনে পোড়া ক্ষতিগ্রস্থ গৃহিনী জাকিয়া সুলতানা জানান যে, তাদের পরনের কাপড় ছাড়া ঘরে থাকা প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার সমস্ত মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বর্তমানে তারা সবকিছু হারিয়ে সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে বলে আর্তনাত করছে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ