মিজানুর রহমান মিলন, বগুড়া জেলা প্রতিনিধি,
নওগাঁ জেলার মান্দা থানায় চাঞ্চল্যকর মুনছুর হত্যা মামলার আসামী আলম (২৬) কে গ্রেফতার করেছে মান্দা থানা পুলিশ । গ্রেফতারকৃত আলম মান্দা উপজেলার চক কালিকাপুর গ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে। গত ১৫ নভেম্বর ২০২২ দিনগত রাতে অনুমান ১০.৩০ ঘটিকায় মান্দা উপজেলার গোয়ালমান্দা গ্রামের বদের আলী ওরফে বুদু কবিরাজের ছেলে মুনছুর (৩৯) কে হত্যা করে গোয়ালমান্দা গ্রামে মাঠের মধ্যে ইউক্যালিপটাস গাছের বাগানে লাশ ফেলে যায় হত্যাকারীরা। পরের দিন ১৬ নভেম্বর ২০২২ সকাল সাড়ে ছয়টায় মুনছুরের লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় মুনছুরের বাবা বদের আলী বাদী হয়ে তার ছেলেকে হত্যার দায়ে ১ জন আসামীকে এজাহারে অভিযুক্ত করে এবং ৪/৫ জন কে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মান্দা থানায় মামলা দায়ের করে। মামলাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে। ঘটনার পর থেকেই মান্দা থানা পুলিশ মামলার রহস্য উদঘাটন এবং আসামীদের গ্রেফতারের জন্য ব্যাপক অভিযান চালায়। কিন্তু আসামীরা ঘটনার রাতেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ বিভিন্ন জেলায় অভিযান শুরু করে। গত বুধবার (১৪ ডিসেম্বর ২০২২ ) রাতে পুলিশ নাটোর জেলার নাটোর সদর থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই মামলার ঘটনার সাথে জড়িত আসামী আলম কে গ্রেফতার করে। এই অভিযানে মান্দা থানার এস আই শামীম হাসান, এ এস আই রাকিবুল হাসান, এ এস আই ফরহাদ হোসেন সংগীয় ফোর্স সহ অংশ গ্রহণ করে।
মান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ নূরে আলম সিদ্দিকী পিপিএম বলেন, মুনছুর হত্যা মামলায় আসামী আলমকে গ্রেফতার করা হয়েছে । তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
মান্দা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মতিয়ার রহমান জানান, মুনছুর হত্যা মামলার আসামী আলম বিজ্ঞ আদালতে হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে ।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ