উজ্জ্বল কুমার সরকার, নওগাঁঃ
নওগাঁর বদলগাছীতে সেনাবাহিনীতে চাকরি দেয়ার নাম করে প্রতারণার দায়ে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব দুজনকে আটক করেছে। এরা হলেন উপজেলার গোরশাহী গ্রামের তছির উদ্দিন মন্ডলের ছেলে নুরুল ইসলাম (৫৭) ও আজু খাঁর ছেলে আব্দুল কুদ্দুস খাঁ (৪০)। শুক্রবার (৫ এপ্রিল) ভোর ৩টায় র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল তাদের আটক করেন। দুপুরে র‌্যব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্প থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে, র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট এর চৌকস অপারেশনাল গোরশাহী এলাকা হতে ভূয়া নিয়োগপত্র প্রদানের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের মূলহোতাসহ দুজনকে আটক করা হয়। নুরুল ইসলাম প্রতারক সিন্ডিকেটের মূলহোতা। সে ও তার সহযোগী কুদ্দুস র্দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার সাথে জড়িত। মুলহোতা নুরুল চাকরিপ্রার্থীদের বলেন উচ্চপদস্থ সেনা কর্মকর্তাদের সাথে তার ভাল সর্ম্পক আছে। তারা মিথ্যা আশ্বাস ও ভুয়া নিয়োগপত্র প্রদানের মাধ্যমে প্রার্থীদের নিকট থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিত।
২০২৩ সালে বাংলাদেশ সোনাবহিনীতে নিয়োগ চলাকালে নুরুল ও কুদ্দুস সিন্ডিকেট চাকরিপ্রার্থী ওমর ফারুক এর সাথে প্রতারণার মাধ্যমে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অবধৈভাবে ১২ লক্ষ টাকা চুক্তিতে নগদ ৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় এবং একটি ভূয়া নিয়োগপত্র প্রদান করে। ওমর ফারুক ওই পদে যোগদান করতে গেলে ভূয়া নিয়োগ পত্রের বিষয়টি জানতে পেরে নুরুল ও কুদ্দুস এর বিরুদ্ধে জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পে প্রতারণার অভিযোগ করেন। অভিযোগের পর র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর একটি আভিযানিক দল প্রতারক চক্রের মূলহোতা নুরুল ইসলাম ও সহযোগি কুদ্দুস খাঁ কে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়।
তাদেরকে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বদলগাছী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ