উজ্জ্বল কুমার সরকার, নওগাঁঃ
র‌্যাব প্রাতিষ্ঠানিক সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরনের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে । জঙ্গি, সন্ত্রাসী, সঙ্ঘবদ্ধ অপরাধী, মাদক, অস্ত্র, ভেজাল পণ্য, ছিনতাইকারী, প্রতারক, হত্যা এবং ধর্ষক মামলার আসামিসহ সকল অপরাধের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।এরই ধারাবাহিকতায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে, র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট এর চৌকস আভিযানিক দল ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ইং তারিখ ১৪০০ ঘটিকায় নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট থানাধীন হরিতকিডাঙ্গা এলাকা হতে ২০ পিচ ট্যাপান্টাডলসহ মাদক কারবারী মোঃ রাহেনুর রহমান (৪৪), পিতা-মোঃ ময়েন উদ্দিন, সাং-পিরলডাঙ্গা, থানা-
ধামুইরহাট ও জেলা-নওগাঁ কে গ্রেফতার করা হয়।গ্রেফতারকৃত আসামী রাহেনুর একজন চিহ্নিত মাদক কারবারী। সে সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদক সংগ্রহ করে নওগাঁ জেলার বিভিন্ন এলাকায় খুচরা ও পাইকারী বিক্রি করতো। এই সংবাদের ভিত্তিতে গত কয়েকদিন ধরে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর গোয়েন্দা দল উক্ত ব্যক্তির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ শুরু করে। অদ্য ২৬-২-২০২৪ ইং তারিখে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উক্ত আসামী কে মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের সময় নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট থানাধীন হরিতকিডাঙ্গা এলাকা থেকে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর আভিযানিক দল রাহেনুর কে আটক করে। পরবর্তীতে সাক্ষীদের উপস্থিতিতে ধৃত আসামী কে তল্লাশি করলে তার নিকট থেকে অবৈধ মাদকদ্রব্য ২০ পিচ ট্যাপেন্টাডল উদ্ধার করা হয়। মাদকসেবী ও মাদক কারবারী সিন্ডিকেটের অন্যান্য সদস্যদের ধরতে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ জয়পুরহাট ক্যাম্পের গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।
গ্রেফতারকৃত আসামীকে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে নওগাঁ জেলার ধামুইরহাট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ