উজ্জ্বল কুমার সরকার, নওগাঁঃ
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নওগাঁ-২ (ধামইরহাট-পত্নীতলা) আসন এর স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল হক (৭৫) এর মৃত্যু। প্রার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় আজ শুক্রবার বিকেলে নির্বাচন কমিশন এক বৈঠকে নওগাঁ-২, ধামুরহাট-পত্নীতলা আসনে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেছেন। যার ফলে আগামী ৭ জানুয়ারী এ আসনে ভোট গ্রহন হচ্ছে না। শুক্রবার ২৯ ডিসেম্বর ভোর সারে ৪ টারদিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন। জানা গেছে, গত ২৭ ডিসেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত অসুস্থ হওয়ায় তাকে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেন। মৃত্যু বরণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল হক নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার লক্ষনপাড়া গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ এর ছেলে ও নজিপুর পৌর সভার সাবেক মেয়র।
মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক পুত্র সন্তান সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান। সুত্র আরো জানায়, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দেন। জাচাই-বাছায়ে মনোনয়নটি বাতিল হলে তিনি উচ্চ আদালতে রিট আবেদন এর মাধ্যমে ফেরত পেয়ে স্বতন্ত্র এমপি পদ প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দীতায় ছিলেন।
এ বিষয়ে নওগাঁ জেলা রিটার্নিং অফিসার ও নওগাঁ জেলা প্রশাসক মোঃ গোলাম মওলা বলেন, মহামান্য উচ্চ আদালতের রায়ের প্রেক্ষিতে তার প্রার্থীতা ফিরে পেলে ২৮ ডিসেম্বর সন্ধায় স্বতন্ত্র এমপি পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল হক প্রতিনিধির মাধ্যমে প্রতীক বরাদ্দ নিয়েছিলেন।সর্বশেষ তথ্যে জানাগেছে, শুক্রবার বিকেলে এ আসনে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়।উল্লেখ্য যে, নওগাঁ-২, ধামইরহাট-পত্নীতলা নির্বাচনী আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী ও বর্তমান এমপি শহীদুজ্জামান সরকার, জাতীয় পার্টির প্রার্থী এডঃ তোফাজ্জল হোসেন, আওয়ামীলীগের স্বতন্ত্র এমপি প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার আতারুল আলমও এই আসনে প্রতিদ্বন্দীতা করছিলেন।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ