টাঙ্গাইলে ইউএনওর নামে ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেপ্তার।

স্টাফ রিপোর্টারঃ মোঃ রুবেল হোসাইন তুহিন তালুকদার।
টাঙ্গাইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) রানুয়ারা খাতুনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুক আইডি খুলে টাকা দাবি করা যুবককে আটক করেছে সদর থানার পুলিশ। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে টাঙ্গাইল থানায় একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করেন ইউএনওর অফিসের জারীকারক মো. চাঁন মামুদ। পরে সদর থানার পুলিশ টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলার ভারড়া গ্রামের রকমত আলীর ছেলে বিজয় খানকে মির্জাপুর থেকে গ্রেপ্তার করেন। মামলা সূত্রে জানা যায়, ইশরাত জাহান সিনথিয়া নামের ফেসবুক আইডি তৈরী করে তাতে সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা রানুয়ারা খাতুনের ছবি ব্যবহার করে প্রতারক বিজয় খান আইডিটি ব্যবহার করে আসছিল। ফেসবুকের তালিকায় থাকা বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে বিকাশ নম্বরের মাধ্যমে বিভিন্ন পরিমানের অর্থ দাবিপূর্বক আদায় করে আসছিলেন তিনি। বিষটি ইউএনও জানতে পেরে নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে তার নাম ব্যবহারকারী কারো সাথে অবৈধ অর্থ লেনদেন করতে নিষেধ করে পোষ্ট করেন। এক পর্যায়ে ইশরাত জাহান সিনথিয়া নামীয় ফেসবুক আইডি বন্ধু তালিকা থাকা কয়েক জনের নিকট টাকা দাবি করেন ওই প্রতারক যুবক। বিষটি পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। ইউএনও রানুয়ারা খাতুন বলেন, আমার ছবি ব্যবহার করে তৈরি আইডি থেকে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাতের বিষটি আমি অবগত হই। এ সময় আমার ব্যাক্তিগত ও অফিসিয়াল ফেসবুক একাউন্ট থেকে সতর্ক মূলক পোষ্ট দেই। পরে সদর থানার পুলিশ অভিযুক্তকে মির্জাপুর থেকে প্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা টাঙ্গাইল সদর মডেল থানার এস আই সুবল চন্দ্র পাল জানান, উপজেলা অফিসের জারী কারক মো. চাঁন মামুদ বাদী হয়ে বিজয় খানের নামে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় ওই প্রতারককে শুক্রবার রাতেই মির্জাপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে শনিবার আদালতে প্রেরণ করে রিমান্ড চাওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ