কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রতিনিধিঃ

পুলিশ নিয়ে অনেকের বিরূপ ধারণা থাকলেও গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর থানার বিদায়ী ওসি তদন্ত মোহাম্মদ সাব্বির রহমান সে ধারণা সম্পূর্ণ বদলে দিয়েছেন। তথ্য অনুসন্ধানের জানা যায় ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ সাব্বির রহমান গত ০৮ অক্টোবর, ২০২৩ কালিয়াকৈর থানায় যোগদান করার পর নিজের জবাবদিহীতা ও দায়বদ্ধতা থেকে ভিন্নধর্মী পুলিশি সেবার উদ্যোগ নেন। তিনি ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগের মাধ্যমে থানা এলাকার অপরাধ সংক্রান্ত তথ্য তৎক্ষনাৎ পাওযার জন্য whatsapp গ্রুপ খুলে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী ও জনসাধারণের সাথে ভাচরচুয়ালী তথ্য আদান প্রদানের ব্যবস্থা করেন। তিনি মাদক, কিশোর গ্যাং, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিংসহ নানা অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রণে কালিয়াকৈর থানা পুলিশকে উক্ত গ্রুপে গোপনে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার জন্য অনুরোধ করেন। এর সুফল পায় কালিয়াকেরবাসী। তিনি তার অফিস কক্ষের লিখে রেখেছিলেন-‘‘ইহা একজন গণকর্মচারীর অফিস (জনগণের দরবার)।যে কোনো প্রয়োজনে এই অফিসে ঢুকতে অনুমতির প্রয়োজন নাই। আপনার যে কোনো সমস্যা ও প্রয়োজনে নির্ভয়ে সরাসরি কথা বলুন কিংবা লিখিতভাবে অবহিত করুন।’’ তার এই লেখাটি এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।কালিয়াকৈর সাধারণ লোকজন বলেন, তিনি একজন সৎ ও অন্যায়ের কাছে আপোষহীন ব্যতিক্রমধর্মী পুলিশ অফিসার।তার কাছে ধনী-গরিব, রিক্সাচালকসহ সব শ্রেণি পেশার মানুষ সমান।সেবাপ্রার্থী সাধারন মানুষ যেন কোন হয়রানির শিকার না হয়, সেজন্য ভুক্তভোগী সাধারন মানুষের কথা শুনে দ্রুত সমস্যা সমাধান দিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিল।এছাড়াও কালিয়াকৈর উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজে তাকে দেখা গিয়াছে। এই বিষয়ে জানতে চাইলে কালিয়াকৈর থানার বিদায়ী ওসি তদন্ত মোহাম্মদ সাব্বির রহমান বলেন, একজন নির্যাতিত মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল হলো পুলিশ। আর আমরা যদি তাদের আশ্রয় এবং তাদের সমস্যা নিরসন না করি তাহলে কে করবে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ