এম আর সজিব, সুনামগঞ্জ থেকে:
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সুশংকর পাল ও এসআই মোঃ মিজানুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় অভিযান পরিচালনা করে আন্তঃ জেলা চোর চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেন। গতকাল সোমবার (১১ মার্চ ২০২৪ খ্রি.) সিলেট মেট্রোপলিটন এলাকার বিভিন্ন স্থানে দিনব্যাপী এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন চাঁদপুর জেলার উত্তর মতলব থানার জহিরাবাজ গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মোঃ মাহমুদ হোসেন প্রকাশ জাহেদ (৩২)সিলেট জেলার জকিগঞ্জ থানার নোয়াগ্রাম গ্রামের মৃত আয়াছ আলীর ছেলে রায়হান আহমদ (২৮)একই থানার হাতিদহর গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনর ছেলে অলিদুর রহমান অলিদ (২৯)জৈন্তাপুর থানার ঘাটের চটি গ্রামের মৃত আব্দুল গণির ছেলে দুলাল মিয়া (২৭)দক্ষিণ সুরমা থানার স্বর্ণশিখা গ্রামের মোঃ রফিক মিয়ার ছেলে মোঃ শাকিল মিয়া @ সৌখিন আহমদ (৩৫)।
গত ৩ মার্চ দিবাগত রাতে কতিপয় চোরচক্র জগন্নাথপুর থানাধীন নারিকেলতলা গ্রামে স্থাপিত মোবাইলফোন অপারেটর রবি টাওয়ারের ভিতরে প্রবেশের গেইট ভেঙ্গে ৪৮ ভোল্টের ২টি ব্যাটারি চুরি করে নিয়ে যায়। যার মূল্য ২ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা। এই সংবাদ পেয়ে জগন্নাথপুর থানা পুলিশের একটি টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে যাওয়ার পথে একটি পিকআপ গাড়িকে সন্দেহ হয়। গাড়িটিকে থামার সংকেত দিলে পুলিশের সংকেত অমান্য করে দ্রুত গতিতে চলে যায়। পুলিশের টহল টিম গাড়িটিকে ধাওয়া করলে কতিপয় চোরদল গাড়িটিসহ চোরাই কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি ও টাওয়ার থেকে চুরিকৃত ব্যাটারি ২টি ফেলে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় টাওয়ারের সুপার ভাইজার আব্দুল আলিম বাদী হয়ে গত ৪ মার্চ অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলে জগন্নাথপুর থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়। মামলা রুজুর পর থেকে এই মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই মোঃ মিজানুর রহমান মামলার ঘটনার সাথে জড়িত অজ্ঞাতনামা আসামিদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে একাধিক স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন। গ্রেফতারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে বর্ণিত ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। আসামিদের যথাযথ পুলিশ স্কর্টের মাধ্যমে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ