রাজধানীর ওয়ারী গোপীবাগে দুর্বৃত্তের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আলমগীর হোসেন (৪৮) নামে এক যুবলীগ নেতার বাম হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। তিনি ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি।

শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে গোপীবাগ বাজার সংলগ্ন রাস্তায় এই ঘটনা ঘটে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।
আহত আলমগীর হোসেন জানান, তার বাসা ওয়ারীর আরকে মিশন রোডে। এশার নামাজ পড়ার জন্য তিনি বাসা থেকে বের হয়ে পায়ে হেঁটে গোগীবাগ পাচানি পুকুর জামে মসজিদে যাচ্ছিলেন। পথে বাজারের বিপরীত পাশের রাস্তায় অন্ধকারের মধ্যে বসে থাকা দুই যুবক তাকে দেখেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকে। এ সময় তিনি বাম হাত দিয়ে আঘাত ফেরাতে গেলে তার হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এর পর পরই তারা সেখান থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়।
আলমগীরকে হাসপাতালে নিয়ে আসা তার ভাগ্নে মো. হাবিব জানান, রাত সোয়া ৮টার দিকে খবর পেয়ে আলমগীর হোসেনকে রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার বাম হাতের কব্জি সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এছাড়া ডান পায়ের হাঁটুতেও ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। কে বা কারা তাকে এভাবে আঘাত করেছে তা জানাতে পারেনি তিনি।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ