(নিজেস্ব সংবাদ দাতা)গাজীপুরের কালিয়াকৈর, পৌরসভায় মোছাঃ ফিরোজা বেগম (৪৬) নামের এক মহিলাকে কালিয়াকৈরে, পূর্বের শত্রুতার জেরে, হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমণ করে প্রতিপক্ষ মোঃ আরহাম খান (৫৫) নামের একব্যাক্তি।

মোছাঃ ফিরোজা বেগম (৪৫), স্বামী সদু সিকদার, সাং পুর্ব চান্দরা বোর্ডমিল, থানা-কালিয়াকৈর, জেলা-গাজীপুর, বলেন। পারিবারিক বিষয়য়াদি নিয়া পুর্ব শত্রুতার কারনে ১/ মোঃ আরহাম খান (৫৫), পিতা মোঃ সুমেজ খান, ২/ খোরশেদা বেগম (৫৮), স্বামী রুস্তম শরীফ দুজনের গ্রামের বাড়ী পূর্ব চান্দরা বোর্ডমিল, থানা-কালিয়াকৈর, জেলা গাজীপুর।

মোছাঃ ফিরোজা বেগম, আরো বলেন ২২’শে নভেম্বর ২০২২ তারিখ সন্ধ্যা অনুমান ০৭: ঘটিকার সময় পৌরসভা কর্তৃক নির্মিত আমাদের বাড়ী হইতে বাহির হওয়ার রাস্তায় বেড়া দিয়া প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। বিষয়টি আমি অবগত হইয়া আমি রাস্তায় আসিয়া বিবাদীদের পাইয়া রাস্তায় প্রবিন্ধকতা সৃষ্টি করার কারন জিজ্ঞাসাবাদ করি তার পর, ১/আরহাম খান, ২/রবিন (২৭), পিতা রুস্তম শরীফ, ৩/হুমায়ুন (৪৫) পিতা অজ্ঞাত হুমায়ুনের শশুড় সুমেজ খান, সবার গ্রামের বাড়ী পূর্ব চান্দরা বোর্ডমিল থানা, কালিয়াকৈর- জেলা গাজীপুর।

মোছাঃ ফিরোজা বেগম, আরো বলেন। আরহাম খান, সহ রবিন, রুস্তম, হুমায়ুন (৪৫), পিতা অজ্ঞাত, শশুড় সুমেজ খান, সহ আরো ৪/৫ জন ভাড়াটিয়া নিয়া লাঠি সোটা নিয়া আমার উপর চড়াও হয়ে আমাকে এলোপাথারি মারপিট করিয়া আমার শরীলের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। আমি দৌড়াইয়া প্রতিবেশী মনির মাষ্টারের বাড়ীতে গিয়া আত্মরক্ষার চেষ্টা করিলে সকল বিবাদীরা আমার পিছু ধাওয়া করিয়া মনির মাষ্টারের বাড়ীতে গিয়া মারপিট শুরু করে। আরহাম খান তার হাতে থাকা লাঠি দিয়া আমার বাম কানে বারি মারে এনে আমার কান ছিড়া ফাটা রক্তাক্ত জখম করে, খোরশেদা আমার গলায় থাকা এক ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন নিয়া যায় যার মূল্য অনুমান ৮০,০০০/- টাকা, হুমায়ুন আমাকে টানা হেচড়া করে শ্রীলতাহানী করে। আমার ডাক চিৎকারে আশে পাশের লোকজন আগাইয়া আসে এসময়, আরহাম খান সহ তার সহযোগীরা সুযোগমত পালায়া যায়- পালায় যাওয়ার সময় আরহাম খান বলে, সুযোগ মতো পাইলে আমাকে
খুন করে ফেলবে এবলে হুমকি দিয়া চলে যায়।

ফিরোজা বেগম আরও বলেন, মারামারির সংবাদ পাইয়া আমার স্বামী বাড়ীতে আসিয়া আমাকে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়া চিকিৎসা করায়। এ ঘটনায় আমি এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পায়নি।
থানায় (জিডি) করা হয়ছে,

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ