নিজস্ব প্রতিনিধি:

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার শিল্পকারখানাগুলো ঈদ উপলক্ষে আজ ছুটি হওয়ায় প্রিয়জনের সাথে ঈদের ছুটি কাটাতে এইসব কারখানায় কর্মরত শ্রমিকগন আজ বাড়ির উদ্দেশ্যে ছুটছেন। ফলে উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ চন্দ্রা এলাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের যানবাহনের উপর চাপ বেড়ে গেছে।

যাত্রীদের সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে যানবাহনের চাপ কম থাকলেও দুপুর ১২ টার পর থেকে যানবাহনের চাপ বেড়ে গেছে । তবে আশেপাশে কারখানাগুলো ছুটি হওয়ায় চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক ও চন্দ্রা -নবীনগর মহাসড়কের যাত্রীদের সংখ্যা বেড়ে গেছে। একদিকে চাহিদার চেয়ে যানবাহন কম তার উপর অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ায় যাত্রীরা ভোগান্তিতে পড়েছেন। এদিকে যাত্রীর সংখ্যা বাড়ায় যানবাহনগুলো অতিরিক্ত ভাড়া দাবি করছে বলে অভিযোগ করেছেন যাত্রীরা।

বগুড়াগামী এক যাত্রী জানান, ‘আমাদের কারখানা আজ দুপুরে ছুটি হয়েছে। ৯ দিনের ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছি। মনে করেছিলাম আজ যানজট হবে না, কিন্তু তার বিপরীত হয়েছে। সড়কে শুধু গাড়ি গাড়ি। তারপরও গাড়িতে উঠতে পারছি না। যারা ওঠাচ্ছে, তারা বেশি ভাড়া নিচ্ছে।’

নওগাঁগামী আরেক যাত্রী জানান, ‘এক হাজার টাকার কমে কোনো গাড়িতেই নিচ্ছে না। বেলা দেড়টা থেকে চন্দ্রায় দাঁড়িয়ে আছি। বিভিন্ন এলাকা থেকে ঘরমুখী মানুষ চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় এসে জড়ো হয়েছেন। এ কারণে এখানে যানবাহন এবং মানুষের চাপ সব সময় লেগেই আছে।’

গাজীপুর সালনা সার্কেল হাইওয়ে পুলিশের এসপি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মানুষ নির্বিঘ্নে বাড়ি যেতে পারে এর জন্য পুলিশ মহাসড়কে কাজ করছে। যাতে করে যাত্রীরা সঠিক মত বাড়ি পৌছাতে পারে।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ