আজ ১৫ আগস্ট ১৯৭৫ সালে এই দিনে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, কালজয়ীপুরুষ, শতাব্দীর মহানায়ক, ইতিহাসের মহাকবি, বাঙ্গালী জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ধানমন্ডি লেকের পাড়ে ৩২ নং এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা ও পুষ্প প্রদান করবেন লক্ষ লক্ষ ছাত্র- শ্রমিক – জনতা। যার জন্ম না হলে বাঙালী জাতির স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হতো না। সেই নেতাকে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত করে জিয়া -মোশতাক – বিপদ গামী সেনাবাহিনীর কিছু উগ্র সেনা কর্মকর্তা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে। যে হত্যা ইতিহাসের জঘন্যতম কাপুরুষ – নৃশংস- লোমহর্ষক – পৈচাশিক হত্যা বলে এদেশের জনগন জানে। আজ বঙ্গবন্ধু জীবিত নেই কিন্তু মৃত্যু বঙ্গবন্ধু অনেক বেশী শক্তিশালী। বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির চেতনা – বিশ্বাস – আদর্শের নাম। বঙ্গবন্ধুর জেষ্ট কন্যা, আধুনিক বাংলাদেশের রুপকার, উন্নয়নের রোল মডেল, বিশ্বের বিস্ময়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী, মানবতার ফেরিওয়ালা, শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে কোথায় নিয়ে গিয়েছে। অর্থনৈতিক, সামাজিক, দারিদ্র্য বিমোচন, শিক্ষা, বিদ্যুৎ, জিডিপি প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি, বিধবা ভাতা, বয়স্কদের ভাতা, মুক্তি যোদ্ধা ভাতা, হেলর্থ ক্লিনিক, একটি বাড়ী একটি খামার, পদ্মা সেতু, কর্ণফুলী টানেল, মেট্রোরেল, ফ্লাইওভার ব্রিজ, ৪৬০ টা মডেল মসজিদ নির্মাণ, শ্রমিকদের ২-৫০ প্রনেদনা, ইত্যাদি বিষয় বিস্তারিত উন্নয়ন। তাই শোককে শক্তি হিসেবে আজকের এই দিনে হউক অঙ্গিকার।।। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ চিরজীবী হউক।।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ