আহসান হাবিব স্টাফ রিপোর্টার:

রাজধানীর উত্তরায় অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে ইমরান হোসেন (৩৫) নামে এক বায়িং হাউজের কর্মকর্তার প্রায় ৩ লাখ টাকা খোয়া গেছে।
আজ শনিবার (১ অক্টোবর) বিকেল সোয়া ৩টার দিকে অচেতন অবস্থায় তার সহকর্মীরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান।

বর্তমানে তিনি হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি আছে।
ইমরানের সহকর্মী নাজমুল ইসলাম জানান, তারা এসএস টেক্স নামে একটি বায়িং হাউজে চাকরি করেন। ইমরান চিফ এক্সিকিউটিভ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মরত আছেন। উত্তরার রাজলক্ষ্মী মার্কেটে তাদের অফিস। সকালে বিমানবন্দর এলাকায় কাজে যান ইমরান। সেখান থেকে দুপুরে দিকে অফিসে ফেরার কথা ছিল।
ওই সহকর্মী বলেন, দুপুরে ইমরানের ফোন থেকে সংবাদ পাই তিনি অচেতন অবস্থায় রাজলক্ষ্মী মার্কেটের সামনে অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন। পরে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসি।
তিনি আরও জানান, বিভিন্ন গার্মেন্ট থেকে প্রায় তিন লাখ টাকা তুলেছিলেন ইমরান। টাকাগুলো তার কাছে থাকা একটি ব্যাগে ছিল। তিনি বাসযোগে অফিসে ফিরছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা তাকে চেতনানাশক কিছু খাওয়াইয়ে তার কাছ থাকা টাকার ব্যাগ নিয়ে গেছে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া জানান, ইমরান হোসেন নামে এক বায়িং হাউজ কর্মকর্তা অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন। তার পাকস্থলি পরিষ্কার করে মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। ইমরানের সহকর্মীরা অভিযোগ করেছেন তার কাছে প্রায় তিন লাখ টাকা ছিল।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ